BangaliNews24.com

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা, দুদকের আবেদন বিষয়ে আদেশ রবিবার

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা, দুদকের আবেদন বিষয়ে আদেশ রবিবার
জুলাই ০১
০১:১৭ ২০১৮

বাঙালিনিউজ২৪ ডেস্ক : ৮ ফেব্রুয়ারি রায়ের পর আদালতে অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার খালাস চেয়ে করা আপিলের সঙ্গে তার সাজা বৃদ্ধি চেয়ে করা সংক্রান্ত দুদকের আবেদন (রিভিশন) একসঙ্গে শুনানি হবে কিনা, সে বিষয়ে রবিবার (১ জুলাই) আদেশ দেবেন হাইকোর্ট। মামলাটি হাইকোর্ট বিভাগের কার্যতালিকায় ১ নম্বর ক্রমিকে রাখা হয়েছে। এদিন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আদেশ দেবেন। শনিবার (৩০ জুন) দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী খুরশীদ আলম খান এই তথ্য জানান।
এর আগে গত ২১ জুন হাইকোর্টের ৫৮টি বেঞ্চ পুনর্গঠন করেন প্রধান বিচারপতি। এ সময় বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ থেকে বিচারপতি সহিদুল করিমকে অন্য একটি বেঞ্চে যুক্ত করা হয়। পাশাপাশি বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের সঙ্গে বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানকে যুক্ত করা হয়। এছাড়া পুনর্গঠিত এই বেঞ্চে দুদকের মামলার শুনানির ক্ষমতা বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি ড. কে. এম. হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে দেওয়া হয়।
প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার খালাস চেয়ে করা আবেদন ছাড়া খালেদা জিয়ার সাজাবৃদ্ধি চেয়ে দুদকের রিভিশন আবেদন শুনতে অপারগতা প্রকাশ করেন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ।
খুরশীদ আলম খান বলেন, ‘খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধি চেয়ে করা আমাদের (দুদক) আবেদন হাইকোর্ট শুনতে অপারগতা প্রকাশ করে দুদকের মামলার জন্য নির্ধারিত বেঞ্চে শুনানি করতে বলেন। কিন্তু আমরা উভয়পক্ষের আবেদন একসঙ্গে শুনানি করতে চেয়েছি। তাই এ বিষয়ে প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন জানাই। এখন খালেদা জিয়ার আপিল আবেদনের সঙ্গে আমাদের রিভিশন আবেদনের একসঙ্গে শুনানি হবে কিনা, সে বিষয়টি আগামীকাল রবিবার (১ জুলাই) হাইকোর্টের আদেশে বোঝা যাবে।’
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে করা আপিলের ওপর শুনানির জন্য আগামী ৩ জুলাই দিন ধার্য রয়েছে। গত ২৭ জুন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানির এই দিন নির্ধারণ করেন।
উল্লেখ্য, এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর কারাদণ্ডাদেশ দেন বিচারিক আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়াকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি এখন সেখানেই আছেন।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com