BangaliNews24.com

মাদক বিরোধী অভিযানে রিকশা চালক

মাদক বিরোধী অভিযানে রিকশা চালক
জুলাই ০৮
২২:০১ ২০১৮

বুলবুল অাহমেদ,সিরাজগঞ্জ থেকে : কদিন অাগে Habib Millat এমপি সাহেবের বাসা থেকে বেড় হয়ে পরিচিত এক রিকশাওয়ালার রিকশায় উঠে অামার বাড়ির দিকে রওয়ানা হয়েছি।

রিকশা চালক অামার পরিচিত, অামি জানি সে প্রতিবারই ধানের শীষে ভোট দেয়। তাই তাকে জিঙ্গেস করলাম, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের পরও কি নৌকায় ভোট দেবেনা?

রিকশা চালক এবার তার রিকশাটি কিছুটা Slow করে অামার দিকে মুখ ঘুরে তাকালেন এবং অামার হাত ধরে বল্লেন “মাদক বিরোধী এই অভিযানের কারনে অামি অনেক খুশি হয়েছি ভাই।”

অামার একটি ছেলে অাছে সপ্তম শ্রেনিতে পড়ে, ওকে নিয়ে অামার অনেক স্বপ্ন। অামি নিজে মানুষ হতে পারিনি, রিকশাওয়ালা হয়েছি। কিন্তু অামি চাই অামার ছেলেটা একদিন লেখা পড়া শিখে মানুষের মত মানুষ হবে।

অামার ছেলেটা যখন পাশ করে একটা একটা করে ক্লাস পাড় হয়ে উপড়ের ক্লাসে উঠছে, তখন ওকে নিয়ে অামার গর্ব হবার পাশাপাশি দুঃশ্চিন্তারও শেষ নাই। এমন একটা এলাকায় বসবাসকরি একদিকে মাহমুদপুরে মাদক ব্যবসা অন্যদিকে রায়পুরে মাদক ব্যবসা(সিরাজগঞ্জ সদর)।

অামি সারাদিন রিকশা চালাতাম অার ওকে নিয়ে দুঃশ্চিন্তা করতাম, এই বুঝি অামার ছেলেটা মাদকের নেশায় অাশক্ত হয়ে পড়ল। রাতে বাড়িতে গিয়ে খোঁজ খবর নিতাম সারাদিন কোথায় ছিল, কার সাথে মিশেছে কিন্তু তারপরও মনে শান্তি পেতাম না।

ছেলেকে সবসময় চোখে চোখে রাখার পরও চিরচেনা একটা ভয় অামাকে স্বার্বক্ষণ পেরেশানিতে রাখতো। একবার ভেবেছিলাম ছেলেকে মানুষ করার জন্য এলাকা ছেড়ে চলে যাবো। অাবার ভাবলাম কোথায় যাবো? মাদক ব্যবসাত চলছে সারাদেশ ব্যপি।

অবশেষে যখন শেখ হাসিনা মাদক বিরোধী অভিযানের ঘোষণা দিলেন, প্রথম দিকে ভেবেছিলাম এগুলি হয়ত লোক দেখানো। কারন সামনে নির্বাচন, ভোট পাবার জন্যই বোধ হয় শেখ হাসিনা এই কৌশল অবলম্বন করেছেন।

কিন্তু যখন দেখলাম সারাদেশে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীরা নিহত হচ্ছে এবং অামাদের সিরাজগঞ্জেও পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে, তখন অামার অানন্দ অার দেখেকে !!

অামি এখন সম্পূর্ণ নিঃশ্চিন্ত। রাতে বাড়ি ফিরে ছেলেকে বন্দুকযুদ্ধের গল্প শোনাই, যাতে ভয়ে ওর মধ্যে মাদকের প্রতি কোন অাশক্তি কখনো তৈরি না হয়। অার সকালে ঘুম থেকে উঠেই অাগে টিভিতে খবর দেখি, গতরাতে সারাদেশে কতজন নরপশু বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে এই খবর জানার জন্য।

বুলবুল ভাই, অামি মন থেকে বলছি “অামি অামার জীবনে মাদকের বিরুদ্ধে এমন ভয়াবহ অভিযান এর অাগে কখনো দেখিনি। এত বড় দুঃশ্চিন্তা থেকে যে অামাকে মুক্তি দিয়েছে, এখন যদি অামি তাকে ভোট না দেই “তাহলে অামার মানুষ হয়ে জন্মানোটাই বৃথা।

অামি তখন রিকশা চালককে বল্লাম “তোমাদের বিএনপি নেতা মির্জা ফকরুল অার রিজভী তো মাদক ব্যবসায়ীদের জন্য কাঁদতে কাঁদতে তাদের বুক ভাসাচ্ছে।”

তখন রিকশা চালক বলেওঠে “ওদের কথা অার বইলেন না ভাই, নিজেরাত ভালো কিছু করতে পারবে না। অন্য কেউ ভাল কিছু করলে তাকে যে উৎসাহ দিবে, সে মানুষিকতাটাও এদের নষ্ট হয়েগেছে। এদের কারনেই অাজ বিএনপি দেউলিয়া হয়েছে।

অামি এতদিন একটা ভুলের মধ্যে ছিলাম ভাই, অযথা ধানের শীষে ভোট দিয়ে শুধু শুধু অামার ভোট অামি নষ্ট করেছি। অামি অাপনাকে ছুঁয়ে কথা দিচ্ছি ভাই, এখন থেকে অামার বাড়ির সবগুলি ভোট অামরা নৌকায় দেব।

অাসলে দিন বদলের সুচনাটা এভাবেই হচ্ছে নিরবে নিবৃতে। জননেত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণ নেতৃত্ব গুনে, অাস্তে অাস্তে বদলে যাচ্ছে সবধরনের শ্রেনীপেষার মানুষের নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি। যা জামাত-বিএনপির মিথ্যাচারের চাদরে অাবৃত ছিল বহুকাল।

এভাবেই বাস্তবায়িত হবে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোঁনারবাংলা গড়ার অসমাপ্ত কাজ। স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিতে অাবারো বলিয়ান হয়ে বাঙ্গালি জাতীয়তাবাদ অার ধর্মনিরপেক্ষতার স্লোগানে, মিছিলে।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com