BangaliNews24.com

গাড়ির ফিটনেস পেপার ও ড্রাইভিং লাইসেন্স সংগ্রহের হিড়িক

গাড়ির ফিটনেস পেপার ও ড্রাইভিং লাইসেন্স সংগ্রহের হিড়িক
অগাস্ট ০৮
০০:২৩ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআরটিএ’র কার্যালয়ে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে সেবা প্রত্যাশীদের ভিড়। ড্রাইভিং লাইসেন্স ও গাড়ির ফিটনেস সংক্রান্ত কাগজপত্র সংগ্রহের জন্য প্রতিদিনই উপচেপড়া ভিড় জমছে। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও ট্রাফিক সপ্তাহ শুরুর পর বেড়েছে চাপ। পরিস্থিতি সামলাতে সকাল নয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত চলছে বিআরটিএ’র দাপ্তরিক কাজ। এদিকে, সেবা প্রত্যাশীদের চাপ বাড়ায় বেড়েছে দালালদের দৌরাত্ম্যও।

দিনভর মানুষের চাপ এখন রাজধানীর বিআরটিএ কার্যালয়ে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন এবং পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপের প্রেক্ষিতে গাড়ির চালক এবং মালিকরা হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন বিআরটিএ অফিসে। ডাইভিং লাইসেন্স ও গাড়ির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জোগাড় ও হালনাগাদ করতেই এমন ভিড়।

সীমিত জনবল এবং হঠাৎ সেবা প্রত্যাশীদের উপস্থিতি বেড়ে যাওয়ায় রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে বিআরটিএ’র কর্মকর্তা-কর্মচারীদের।

এই সুযোগে দালালদের দৌরাত্ম্যও বেড়েছে। গাড়ির লাইন, সেবা প্রাত্যাশীদের লাইন … সবখানেই দালালদের উপস্থিতিতে বিরক্ত সাধারণ মানুষ।

বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ বলছেন, দালালদের উপস্থিতি বা বিআরটিএ কর্মকর্তাদের অসদাচরণের কোন প্রমাণ মিললে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। হঠাৎ চাপ বেড়ে যাওয়ায় কিছুটা হিমশিম খেতে হলেও সুষ্ঠুভাবেই কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে বলে জানালেন এই কর্মকর্তা। সকাল ৯ টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকছে কার্যালয়।

এদিকে, মেয়াদোত্তীর্ণ লাইসেন্স এবং ফিটনেস বিহীন যানবাহন ধরতে রাজধানীতে বিআরটিএ’র পাঁচটি ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ করছে।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com