BangaliNews24.com

পনেরো বছর পর বাবাকে খুঁজে পেলেন মতলবের শাজাহান

পনেরো বছর পর বাবাকে খুঁজে পেলেন মতলবের শাজাহান
জুলাই ১০
২১:০৫ ২০১৮

বিশেষ প্রতিনিধি : ভালো হোক আর মন্দ হোক- বাবা আমার বাবা, পৃথিবীতে বাবার মতো আর আছে কেবা। সিনেমার গানের মতো এমনই আবেগ নিয়ে ১৫ বছর ধরে বহু জায়গায় বাবাকে খুঁজছেন মতলবের শাজাহান। পেশায় দিনমজুর হলেও বাবার প্রতি অগাধ ভালোবাসার কারণেই ১৫ বছর পর বাবাকে খুঁজে পেয়ে আনন্দে অশ্রুসিক্ত হন শাজাহান। ২০১২ সালে নিখোঁজ হওয়া আবুল খায়েরকে গত ৮ জুলাই রোববার সকালে সাতক্ষীরার ত্রিশমাইলে পাওয়া গেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ১৫ বছর আগে কোনো এক বিকেলে চা পানের কথা বলে হুট করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান ৫৫ বছর বয়স্ক আবুল খায়ের। স্থানীয়ভাবে তাকে সবাই লনু মিঞা বলে চেনেন। ২ ছেলে ও ৫ মেয়ে সন্তানের জনক লনু মিঞা মানসিকভাবে কিছুটা অপ্রকৃতিস্থ ছিলেন। তবে তার আচরণের মধ্যে পাগলামির তেমন নমুনা ছিল না। লনু মিঞা চা পানের কথা বলে সেই যে বেরিয়ে যান আর বাড়ি ফেরেননি।

পাটকেলঘাটা থানার ত্রিশমাইল এলাকার চা বিক্রেতা নুর ইসলাম বলেন, মাস তিনেক আগে স্থানীয় সাইকেল মিস্ত্রি গাউসের দোকানের সামনে বৃদ্ধ লোকটিকে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তিনি তাকে মসজিদের পাশে থাকতে দেন। স্থানীয়দের সহায়তায় তিনি অপরিচিত এই লোকটাকে খাইয়েছেন। এমনকি তার চিকিৎসাসেবাও দিয়েছেন। পরে বাঁশ ও কাঠ দিয়ে তার থাকার জন্য একটা জায়গাও করে দেন। এভাবেই চলছিল। তবে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তারা চিন্তায় পড়ে যান। বয়স্ক লোকটা কোনো কথা না বলায় তার পরিচয় জানা সম্ভব হচ্ছিল না। অনেক চেষ্টার পর তার পরিচয় জানা সম্ভব হয়। পরে তার পকেটে থাকা কিছু চিরকুটের লেখা থেকে তার ঠিকানা সংগ্রহ করে তিনি স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে দেন। সাতক্ষীরার সাংবাদিকরা চাঁদপুরের সাংবাদিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে খোঁজ মেলে লনু মিঞার পরিবারের। তার একটি কান বোঁচা দেখেই নিশ্চিত হওয়া যায়, তিনিই সেই হারিয়ে যাওয়া লনু মিঞা।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com