BangaliNews24.com

আওয়ামী লীগের হামলায় ৪ সাংবাদিক আহত

আওয়ামী লীগের হামলায় ৪ সাংবাদিক আহত
জানুয়ারী ২৯
১৯:৩২ ২০২২


২০২২ সালের ২৯শে জানুয়ারি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মন্ডলপাড়া গ্রামে ক্ষমতাসীন দলের লোকজনের হামলায় স্থানীয় চার সাংবাদিক আহত হন। ছবি: সংগৃহীত

“>



২০২২ সালের ২৯শে জানুয়ারি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মন্ডলপাড়া গ্রামে ক্ষমতাসীন দলের লোকজনের হামলায় স্থানীয় চার সাংবাদিক আহত হন। ছবি: সংগৃহীত

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মন্ডলপাড়া গ্রামে আজ বিকেলে ক্ষমতাসীন দলের লোকজনের হামলায় স্থানীয় চার সাংবাদিক আহত হয়েছেন।

৭ ফেব্রুয়ারি সেনুয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নোবেল কুমার সিংয়ের উচ্ছৃঙ্খল সমর্থকদের ছবি তোলার চেষ্টা করার সময় সাংবাদিকরা স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের ওপর হামলার প্রস্তুতি নিলে এ ঘটনা ঘটে, আমাদের ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা জানান। .

আ.লীগের লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে সাংবাদিকদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং তাদের মারধর করে, এতে তাদের চারজন আহত হয়।

আজ দুপুর আড়াইটার দিকে গ্রামে একই স্থানে উভয় গ্রুপ পৃথকভাবে সভা ডাকলে আ.লীগ সমর্থিত প্রার্থী নোবেল সিংহ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মতিউর রহমানের (মোটর সাইকেল প্রতীক) সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে বলে জানান ওসি মোঃ তানভীরুল ইসলাম। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে দ্য ডেইলি স্টারকে ঠাকুরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.

ওসি বলেন, খবর শুনে সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান, একদল উচ্ছৃঙ্খল ব্যক্তি সংঘর্ষের প্রস্তুতি নিতে গাছ থেকে ডালপালা কুড়াচ্ছে।

তারা ছবি তুলতে শুরু করলে, লোকেরা সাংবাদিকদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং লাঠি দিয়ে পিটিয়ে বিভিন্ন প্রিন্ট ও নিউজ পোর্টালের চার জেলা সংবাদদাতাকে আহত করে, পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন।

আহতরা হলেন- দৈনিক ইত্তেফাকের তানভীর হাসান তনু, রাইজিংবিডির মহিউদ্দিন তালুকদার হিমেল, নিউজবাংলা ডটকমের সোহেল রানা ও দৈনিক উশার বাণীর জাহিদ হাসান মিলু।

ছবিঃ সংগৃহীত

“>



ছবিঃ সংগৃহীত

স্থানীয় লোকজন বিশেষ করে গ্রামের মহিলারা তাদের উদ্ধারে এগিয়ে এসে পরে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

আহতদের মধ্যে তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে মিলু প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।

দ্য ডেইলি স্টারের সঙ্গে আলাপকালে তনু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে অভিযোগ করেন, স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা এ হামলা চালিয়েছে।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, তারা স্থানীয় পুলিশকে বারবার ফোন করলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সময়মতো সহযোগিতা করেনি।

অভিযোগ অস্বীকার করে ওসি তানভীর বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সাংবাদিকদের উদ্ধার করে।





Source by [author_name]

অন্যান্য খবর


BangaliNews24.com