BangaliNews24.com

ঠান্ডা আবহাওয়ার মধ্যে বোরো চাষ

ঠান্ডা আবহাওয়ার মধ্যে বোরো চাষ
জানুয়ারী ৩০
০০:০০ ২০২২


ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কমলাপুর গ্রামের কৃষকদের শীত উপেক্ষা করে বোরো চারা রোপণে ব্যস্ত দেখা গেছে। ছবি: তারকা

“>



ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কমলাপুর গ্রামের কৃষকদের শীত উপেক্ষা করে বোরো চারা রোপণে ব্যস্ত দেখা গেছে। ছবি: তারকা

জেলার সব উপজেলায় জোরেশোরে চলছে বোরো আবাদ।

সারাদেশে হাড় হিম শীতল ও কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়া উপেক্ষা করে ছয়টি উপজেলার কয়েক হাজার কৃষক এখন বোরো ধানের চারা রোপণে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

কৃষকরা জানান, প্রায় ছয় সপ্তাহ আগে বোরো আবাদ শুরু হয়েছে এবং তা আরও কয়েক সপ্তাহ চলবে।

পটুয়াখালী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর (ডিএই) সূত্রে জানা গেছে, এরই মধ্যে প্রায় ৫০ শতাংশ বপন সম্পন্ন হয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের কৃষক তোয়াজ হোসেন জানান, চলমান শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশার কারণে সকালে তাদের ক্ষেতে যেতে না পারায় তাদের কাজ ব্যাহত হচ্ছে।

বর্তমানে তারা চারা বপনে ব্যস্ত সময় পার করছেন, তবে প্রচণ্ড ঠান্ডা তাদের ধান গাছে প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তিনি।

অনেক কৃষক জানান, অনুকূল আবহাওয়া ও ধানের ভালো দামের কারণে প্রতি বছরই বোরো আবাদের পরিমাণ বাড়ছে।

কালীগঞ্জের মান্দেরতলা গ্রামের কৃষক মামুন হোসেন জানান, গত বছর তিনি ৪ বিঘা জমিতে বোরো আবাদ করে ১০০ মণ ধান পেয়েছেন। তিনি প্রতি মণ ধান ১৩০০ টাকায় বিক্রি করেন।

গত বছর ধানের ভালো দাম পাওয়ায় চলতি মৌসুমে তিনি ৫ বিঘা বোরো আবাদের আওতায় এনেছেন।

ঝিনাইদহ ডিএইর উপ-পরিচালক আসগর আলী জানান, এ বছর তাদের ৭৮ হাজার ৮৫৫ হেক্টর জমি বোরো আবাদের আওতায় আনার লক্ষ্য রয়েছে।

জমির মধ্যে সদর উপজেলায় ১৯,৮০০ হেক্টর, শৈলকুপায় ১২,২২৫, হরিণাকুণ্ডে ৯,৮৫৫, মহেশপুরে ১৮,০৪৫, কোটচাঁদপুরে ৫,৫৫৫ এবং কালীগঞ্জ উপজেলায় ১৩,৩৭৫ হেক্টর।





Source by [author_name]

অন্যান্য খবর


BangaliNews24.com