BangaliNews24.com

হঠাৎ মহাসড়কে যাএীবাহী লেগুনা বন্ধ , ফলে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের ভৈরব অংশে যাএীরা চরম দূর্ভোগে

হঠাৎ মহাসড়কে যাএীবাহী লেগুনা বন্ধ , ফলে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের ভৈরব অংশে  যাএীরা চরম দূর্ভোগে
অগাস্ট ২৭
২৩:০৫ ২০১৮

ফজলুল হক বাবু,বিশেষ প্রতিনিধি : রবিবার সকাল থেকে হঠাৎ করে মহাসড়কে যাএীবাহী লেগুনা বন্ধ হয়ে যায়, ফলে মহাসড়ক দিয়ে চলাচলকারী কাছের যাএীদের চরম দূর্ভোগে পড়তে দেখা গেছে। আজ দুপুরে সরজমিনে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের ভৈরবে অংশে গিয়ে দেখা যায়, যেমন ভৈরব থেকে মহাসড়ক দিয়ে যাএীরা এতদিন লেগুনা দিয়ে মহমুদাবাদ, নীলকুঠী, নারায়নপুর, বারইচা, মরজাল প্রতিদিন নিয়মিত যাতায়াতকারীরা তারা খুবই বিপাকে পড়েছে, ঐ সব এলাকার কয়েক হাজার ছাএ ছাএী আছে যারা প্রতিদিন ভৈরবের ৩ কলেজে নিয়মিত আসা যাওয়া করতে হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েক যাএীর সাথে কথা বললে তারা জানান, রবিবার সকাল থেকে হঠাৎ করে কোন ঘোষনা ছাড়াই স্বল্প সময়ের যাএার লেগুনা পরিবহন বন্ধ হয়ে যায়, ফলে জীবনের ঝুকি নিয়ে পিক-আপে উপরে চড়ে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে, তা ছাড়া এই সকল এলাকার দূরত্ব ৩ থেকে ১৫ কিঃমিঃ এর বেশী হবে না, এত কমদূরত্বের যাএার অথবা ৫, ১০ টাকার ভারার জন্য দূরপাল্লার কোন বাস কোন যাএী নিতে চায় না। ফলে গত দুই দিন যাবৎ যাএীর এ ভাবে ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়েথাকতে দেখা যায়।।

খোজ নিয়ে জানাযায় এই সকল লেগুনার চালকদের অধিকাংশেরই ড্রাইভিং লাইন্সেন নেই, অতীতে এই সকল চালকরা মহাসড়কে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা চালাত, মহাসড়কে সিএনজি বন্ধ হয়ে গেলে তারা বিকল্প ব্যবস্হ্যা হিসাবে এতদিন পুলিশ কে ফাঁকি দিয়ে সল্প আকার লেগুনাকে চালাতে শুরু করে।।

এ বিষয়ে ভৈরব হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ তরিকুল ইসলাম তালুকদার বাঙালিনিউজ২৪কে জানান, ঈদের আগে ও পড়ে মহাসড়কে দূঘর্টনায় লেগুনার যাএীরা ই বেশী মারা গেছে, তাই এখন থেকে মহাসড়কে লেগুনা চলাচল বন্ধ থাকবে।আমি ভৈরব হাইওয়ে নতুন যোগদান করেছি, এরই মধ্যে মহাসড়কে বালু ও ইট বহন কারী ট্রাকট্রর সম্পূর্ণ বন্ধ করে দিয়েছি, এখন থেকে লেগুনাও বন্ধ থাকবে। গতকাল থেকে মহাসড়কের উপরে যেখানেই তিন চাক্কার গাড়ী পেয়েছি তা রাস্তার পার্শ্বে খাদে ফেলে দিয়েছি । ইতিমধ্যে ভৈরব বাস মালিক সমিতি কে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মহা সড়কে এই সব স্বল্প যাএার যাএীদের জন্য বিকল্প বাসের ব্যবস্থা করতে।।

হাইওয়ে পুলিশের নারায়নগন্জ সার্কেলের সিঃসহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আকতারুজামান বাঙালিনিউজ২৪ কে জানান, এই স্বল্প পাল্লা যাতায়াতকারীদের চলাচলের জন্য প্রতিটি এলাকার স্হানীয় জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ,সকলের সমন্বয়ে আলোচনার মাধ্যমে বাস মালিকরা যদি মিনি কোষ্টার (বাস) মহাসড়কে দিতে পারে, তা হলে মহাসড়কে আর কোন অবৈধ্য যানবাহন থাকবে না।।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com