BangaliNews24.com

বিরল ব্লাড মুন দেখলো কোটি কোটি মানুষ

বিরল ব্লাড মুন দেখলো কোটি কোটি মানুষ
জুলাই ২৮
১১:৫৭ ২০১৮

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: শতাব্দীর দীর্ঘতম পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ দেখলো বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ। ভরা পূর্ণিমায় চাঁদ টকটকে লাল হয়ে চরাচর ঘিরে ছড়ায় রক্তাভ জোছনা। গত রাত ১১টা ১৩ মিনিট ৬ সেকেন্ড থেকে ভোর ৫টা ৩০ মিনিট ২৪ সেকেন্ড পর্যন্ত চলে এই পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ। ঢাকার আকাশে মেঘ থাকায় গ্রহণ দেখতে কিছুটা বিঘœ সৃষ্টি হয়। তবে, বিজ্ঞান মনস্ক মানুষ ভিড় করে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরে।

পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণের সময় সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ একই সরলরেখায় অবস্থান করে। এসময় পৃথিবীর ছায়া ঢেকে যায় চাঁদ, আর আলোক বিকিরণে তা হয়ে ওঠে রক্তাভ। ‘ব্লাড মুন’ নামে পরিচিত। ঢাকার আকাশে রাত ১১টা ১৩ মিনিটি ৬ সেকেন্ডে শুরু হয় গ্রহণ। রাত ২টা ২১ মিনিট ৪৮ সেকেন্ডে রক্তাভ চাঁদকে পুরোপুরি গ্রাস করে নেয় অন্ধকার। আর ভোর ৫টা ৩০ মিনিট ২৪ সেকেন্ড পর্যন্ত স্থায়ী হয় গ্রহণ।

শতাব্দীর দীর্ঘতম এই বিরল দৃশ্য অবলোকন করে বিশ্বের কোটি মানুষ। তবে, বাংলাদেশের আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকায় গ্রহণ দেখতে কিছুটা বিঘœ সৃষ্টি হয়। এই মহাজাগতিক ঘটনার সাক্ষী হতে বিজ্ঞানমনস্ক অনেকেই পরিবার নিয়ে ছুটে আসে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরে।

এমন আয়োজন সারা দেশে করা গেলে বিজ্ঞান চর্চা বাড়বে বলে জানালেন অনেকে।

এদিন মঙ্গল গ্রহও চলে আসে পৃথিবীর খুব কাছে। তাই চন্দ্রগ্রহণ ও মঙ্গলগ্রহ দেখার পাশাপাশি বিজ্ঞান বিষয়ক সেমিনারের আয়োজন করে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর। এতে বিজ্ঞান ভিত্তিক বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন আয়োজকরা।

২০২৮ সালে আবারও ব্লাড মুন দেখা যাবে। তবে এবারের মতো দীর্ঘ সময় ধরে ব্লাড মুন দেখতে অপেক্ষা করতে হবে ২১২৩ সাল পর্যন্ত।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com