BangaliNews24.com

জানুয়ারিতে পাওয়া যাবে ই-পাসপোর্ট

জানুয়ারিতে পাওয়া যাবে ই-পাসপোর্ট
অক্টোবর ২৮
০১:৩৬ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন বছরের শুরুতেই ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট বা ই-পাসপোর্ট হাতে পাবেন নাগরিকরা। এর আগে ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ পরীক্ষামূলক বিতরণ শুরু করবে পাসপোর্ট অধিদপ্তর। ই-পাসপোর্ট চালু হলে জালিয়াতি বন্ধ এবং ভ্রমণের সময় ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সহজ হবে। পর্যায়ক্রমে বর্তমানে চালু মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট বা এমআরপি দেয়া বন্ধ হয়ে যাবে বলে জানালেন পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

নিরাপদ ভ্রমণ ও জালিয়াতি বন্ধে হাতে লেখা পাসপোর্ট বন্ধ করে চালু হয় মেশিনে পাঠযোগ্য পাসপোর্ট বা এমআরপি। প্রযুক্তির উন্নতির পাশাপাশি সীমান্ত নিরাপত্তা নিশছিদ্র ও বিদেশ ভ্রমণের ভোগান্তি কমাতে এবার এমআরপির জায়গা নিচ্ছে ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট বা ই-পাসপোর্ট।

জানুয়ারিতেই যারা এমআরপি নবায়ন করতে যাবেন, তাদের ই-পাসপোর্ট দেয়া হবে। বর্তমানে বই আকারে যে পাসপোর্ট রয়েছে, ই-পাসপোর্টও হবে একই ধরনের বই। তবে এর প্রথম পাতায় থাকবে পলিমারের তৈরি একটি কার্ড। এই কার্ডের ইলেকট্রনিক চিপে সংরক্ষিত থাকবে পাসপোর্ট বহনকারীর সব তথ্য।

বর্তমান এমআরপির ডাটাবেজ থেকে সব তথ্য ই-পাসপোর্ট ডাটা বেইজে স্থানান্তর হবে। বিমান, স্থল ও নৌবন্দরে স্থাপন করা হবে ই-গেট বা স্বয়ংক্রিয় সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি। ই-পাসপোর্ট বহনকারী ব্যক্তি নিজেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইমিগ্রেশন করতে পারবেন। এতে সময় ও ভোগান্তি কমবে।

ডিসেম্বরের পর যারা নবায়ন বা নতুন পাসপোর্টের জন্য আবেদন করবেন তারা ই-পাসপোর্ট পাবেন। ভবিষ্যতে ফরম পুরণ ছাড়াই শুধুমাত্র স্মার্ট আইডি কার্ড দিয়ে আবেদন গ্রহণ করা হবে বলে জনান পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। বায়োমেট্রিক এই পাসপোর্টে থাকবে ছবি, ফিঙ্গার প্রিন্ট ও চোখের আইরিশ, যা জালিয়াতি রোধ করবে। ই-পাসপোর্টের সব তথ্য কেন্দ্রীয়ভাবে সংরক্ষিত থাকবে। আন্তর্জাতিক এই তথ্যভান্ডার পরিচালনা করে ইন্টারন্যাশনাল সিভিল অ্যাভিয়েশন অর্গানাইজেশন।

চুক্তি অনুযায়ী ডিসেম্বর থেকে ২০ লাখ রেডিমেট ই পাসপোর্ট দেবে জার্মান কোম্পানি ভেরিডোজ এমবিএইচ। পর্যায়ক্রমে দেশেই ই-পাসপোর্ট বানানো হবে বলে জানালেন পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com