BangaliNews24.com

দিনাজপুর ও যশোরে আগ্রহ বাড়ছে ড্রাগন ফল চাষে

দিনাজপুর ও যশোরে আগ্রহ বাড়ছে ড্রাগন ফল চাষে
জুলাই ৩০
১৪:২১ ২০১৮

বাঙালিনিউজ২৪ ডেস্ক : অনাবাদী জমিতে ড্রাগনফল চাষ করে লাভের মুখ দেখেছেন দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রাম কুন্দলহাটের এক কৃষক। ১০ বিঘা জমিতে ড্রাগন গাছ রোপণ করে ফল বিক্রির মাধ্যমে লাভবান হচ্ছেন। এদিকে, যশোরের শার্শায় বাণিজ্যিকভাবে ড্রাগন ফলের চাষ শুরু হয়েছে। বাজারমূল্য ভালো হওয়ায় দিনদিন এ ফল চাষে ঝুঁকছেন এখানকার চাষীরা।

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রাম আয়রা কুন্দলহাটের কৃষক কামরুজ্জামান। অনাবাদি প্রায় ১শ’ ৫০ বিঘা জমিতে নানা জাতের ফলের বাগান করেছেন। এর মধ্যে ১০ বিঘা জমিতে ড্রাগনফলের গাছ রোপনের এক বছর পরই ফল আসা শুরু হয়েছে। বাণিজ্যিকভাবে ড্রাগন ফল বিক্রি করছেন কামরুজ্জামান। অল্প খরচে লাভ বেশি হওয়ায় এই ফল চাষে আগ্রহ বেড়েছে অনেকের।

এই ফল খুবই মিষ্টি ও সুস্বাদু। দেশের চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানি করা সম্ভব বলে মনে করছেন এ’ কৃষি কর্মকর্তা।

এদিকে, যশোরের শার্শার ডিহি ইউনিয়নের ফুলসার গ্রামে সাড়ে ৭ বিঘা জমিতে ড্রাগনফলের চাষ করেছেন রাশেদুল ইসলাম ও তার ভাই আল হুসাইন। গাছ লাগানোর ১ বছর পর গাছে ফল ধরেছে। এরইমধ্যে ৮০ হাজার টাকার ফল বিক্রি করেছেন। বাজারে কেজি প্রতি ৩২০-৭০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে ড্রাগন ফল।

চাষীদের প্রশিক্ষণ ও প্রয়োজনীয় উপকরণ দিয়ে সহায়তা করা হচ্ছে। প্রতি বিঘায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা খরচ হলেও প্রায় ২ লাখ টাকার ফল বিক্রি করা সম্ভব বলে জানান উপজেলার এ’ কৃষি কর্মকর্তা।

যশোরে গেলো দু’বছর ড্রাগন ফল চাষের জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সবাইকে উদ্বুদ্ধ করেছে। অনেকেই শখের বশে বাড়ির আঙিনা ও ছাদে ড্রাগন ফলের গাছ লাগিয়েছেন।

অন্যান্য খবর

BangaliNews24.com